কুকুরের আতঙ্কে বসিরহাট বাদুড়িয়া বিভিন্ন গ্রামের মানুষ

18th September 2019 Views : 3584

সুজয় মণ্ডলঃ কুকুরের আতঙ্কে ভুগছে বসিরহাট বাদুড়িয়া বিভিন্ন গ্রামের মানুষ ।রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে, ছাত্র-ছাত্রী থেকে গ্রামের মানুষের ।পাগলা কুকুর তান্ডব চালাচ্ছে সকাল  ও দুপুরবেলা। আবার কখনো সন্ধ্যা রাত্রে ওত পেতে বসে আছে শিকার ধরার জন্য। সবমিলিয়ে আতঙ্কে দানা বেঁধেছে গ্রামগুলিতে। সকাল দুপুর সন্ধ্যা বেলায় পড়াশুনা করতে এমনকি বাজার করতে যেতে হচ্ছে আতঙ্ক মধ্য দিয়ে, তাদের দিন কাটাতে হচ্ছে ।পাশাপাশি ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠাতে ভয় পাচ্ছে অভিভাবক অভিভাবিকা ও গ্রামের মানুষ। এই বুঝি কামড়ে দিল।

পাগলা কুকুর কামড় দিয়ে পালিয়ে যাচ্ছে আবার এলাকাছাড়া হয়ে যাচ্ছে। সে জন্য পাগলা কুকুর কে বাগে আনতে রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছে ওই সব আমের মানুষজন। ইতিমধ্যেই বনদপ্তর কে এই বিষয়ে জানানো হয়েছে। কিন্তু বনদপ্তর এখনো কোন তো একটি কুকুরকে নাগাল্যান্ড পারেনি আর সেই আতঙ্কে ঘুম কেড়েছে গ্রামবাসীদের।  বসিরহাটের ভ্যাবলা ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের এলাকার চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র নজরুল মন্ডল, গৃহশিক্ষকের কাছে পড়াশোনা করে বাড়ি ফিরছিল, বাড়ির সামনে আসতেই তার মাথায় এবং হাতে কামড়ে  দিয়ে পালিয়ে যায় পাগলা কুকুর।

১৯ নম্বর ওয়ার্ডের নেওরা দিঘির এলাকার প্রথম শ্রেণীর ছাত্র। নজরুল চৌধুরী বাড়ির দাওয়ায় বসে ছিল, কুকুর ছুটে এসে পায়ে ও বুকে কামড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। ইরিনা পারভীন তাকেও কামড়িয়েছে, বছর ৫৫ সন্ধ্যা সরকার,   তার বাড়ির সামনে কামড়ে দিয়ে পালিয়ে যায় অন্য আরেকটি পাগলা কুকুর।

বসিরহাটের ভ্যাবলা কালীবাড়ি, হরিশপুর, বাদুড়িয়ার, পিয়ারা গ্রামে বিভিন্ন  কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত রোগীরা সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। বসিরহাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি আছে পাপিয়া ঘোষ, এরিনা পারভিন সহ মোট পাঁচজন, বসিরহাট জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এই গ্রামগুলির মানুষ পাগলা কুকুরের আতঙ্কে বাড়ি ছাড়ার উপক্রম হয়ে উঠেছে, তারা ভেবে পাচ্ছে না কিভাবে কুকুরের হাত থেকে রেহাই মিলবে।

Advertisement

আজকের সর্বশেষ খবর

সর্বাধিক জনপ্রিয়