একুশে ‘ভার্চুয়াল বার্তা’ সায়নীর, কী বললেন তৃণমূলের যুব নেত্রী?

নিজস্ব প্রতিবেদন: কোভিড আবহে এবার ভার্চুয়াল মাধ্যমেই ২১ জুলাইয়ে শহিদ দিবস পালন করবে তৃণমূল। এবারই প্রথম সর্বভারতীয় স্তরে বার্তা দেবেন তৃণমূল নেত্রী। রাজ্যে সংক্রমণ গ্রাফ এখনও উর্ধমুখী। এই প্রেক্ষাপটে এবারের শহিদ স্মরণ ভার্চুয়ালেই সারবেন তৃণমূল সুপ্রিমো। বুধবার শহিদ দিবসের প্রাক্কালে রাজ্যবাসীকে আশ্বস্ত করলেন তৃণমূলের যুব নেত্রী সায়নী ঘোষও। 

এদিন একটি ভিডিও বার্তায় ২১ জুলাই নিয়ে কথা বললেন সায়নী। তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের উদ্দেশে আরও একবার তিনি শহিদের স্মরণ করার কথা বলেন। শহিদ দিবসের কর্মসূচি নিলেও কথা বলেন। 

আরও পড়ুন, শহিদ দিবসে মমতার লক্ষ্য ‘দিল্লি’, বাংলার পর জাতীয় স্তরে লড়াইয়ের ডাক

প্রসঙ্গত এবারের বিধানসভা নির্বাচনের আগেই তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন সায়নী। আসানসোল দক্ষিণে তৃণমূলের হয়ে লড়াই করেছিলেন তিনি। যদিও বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পালের কাছে তিনি পরাজিত হন। কিন্তু পরাজিত হলেও তিনি তৃণমূলে বড় দায়িত্ব পেয়েছেন। এর পরে তাঁকে যুব তৃণমূল সভানেত্রীর পদের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

তৃণমূল যুব কংগ্রেসের প্রশংসা করে বৃহত্তর লড়াইয়ের কথা বললেন। গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে আন্দোলন আরও জোরদার করার বার্তাও দেন। তিনি বলেন, ”করনোর জন্য জনসভা করা উচিত ছিল না, আর সেটা করাও হয়নি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বার্তা মেনে মানুষকে বলার যে তৃণমূল কংগ্রেস সবসময় মানুষের পাশে আছে।”

 

যদিও এবারের উদযাপনের মধ্যে রয়েছে রাজনৈতিক তাৎপর্য। এবারই প্রথম সর্বভারতীয় স্তরে বার্তা দেবেন তৃণমূল নেত্রী। লক্ষ্য ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচন এবং দিল্লি-সহ দেশব্যাপী বিজেপি বিরোধিতাকে জোটবদ্ধ করার। এবছর সেই বার্তাতেই নজর রয়েছে কেবল রাজ্যের নয়, বরং গোটা দেশের। দলের সেই বার্তাই আরও একবার স্মরণ করালেন সায়নী। 

Source link

Leave a Reply