গুরুতর অসুস্থ Tulsidas Balaram, ভর্তি নার্সিংহোমে


নিজস্ব প্রতিবেদন: গুরুতর অসুস্থ কিংবদন্তি ফুটবলার তুলসীদাস বলরাম (Tulsidas Balaram)। কলকাতার একটি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়েছে তাঁকে। তবে, চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন বলরাম। আপাতত রোগীকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। নার্সিংহোম সূত্রে তেমনই খবর।

চুনী-পিকে-বলরাম। পাঁচ ও ছয়ের দশকে ভারতীয় ফুটবলের ‘ব্রহ্মা-বিষ্ণু-মহেশ্বর’ বলা হত এই তিনজনকে। গত বছর কয়েক মাসের ব্যবধানে প্রয়াত হন পিকে ও চুনী। বলরামের বয়সও আশি পেরিয়েছে। উত্তরপাড়ায় গঙ্গার ধারে একটি দু’কামরায় ফ্ল্যাটে একাই থাকেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরেই ময়দান থেকে দূরে, এমনকী প্রিয় ক্লাব ইস্টবেঙ্গলেও যান না অতীত দিনের এই তারকা ফুটবলারটি। গত বছর লাল-হলুদের শতবর্ষে বলরামকে বিশেষ সম্মান দিতে চেয়েছিলেন ক্লাব কর্তারা। কিন্তু যাঁকে সম্মান দেওয়া হবে, তিনি নিজেই রাজি হননি। এক প্রাক্তন ফুটবলারকে পাঠিয়েও ভারতীয় দলে চুনী-পিকে-র সতীর্থের সিদ্ধান্ত বদলানো যায়নি। কিন্তু কেন ময়দান ও ইস্টবেঙ্গল ক্লাব বিমুখ বলরাম? তা নিয়ে কখনও প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি তিনি। 

আরও পড়ুন: Video: কবাডি চ্যাম্পিয়নশিপ চলাকালীন ভেঙে পড়ল স্ট্যান্ড, আহত শতাধিক দর্শক

জানা গিয়েছে, এদিন সকালে নিজের ফ্ল্যাটেই আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন তুলসীদাস বলরাম। এরপর আর দেরি না করে তড়িঘড়ি তাঁকে নার্সিংহোমে ভর্তি করেন পাড়ার লোকেরা। কী হয়েছে? নার্সিংহোমে সূত্রে খবর, বলরামে বয়স এখন ৮৪। বার্ধত্যজনিত কারণেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তিনি। আদপে হায়দরাবাদের মানুষ। ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের হয়ে খেলতে কলকাতায় এসেছিলেন বলরাম। আর ফিরে যাননি, পাকাপাকিভাবে থেকে যান বাংলায়।  উত্তরপাড়ায় ফ্ল্যাটে দেওয়ালে লিখে রেখেছেন, মৃত্যুর তাঁর দেহ যেন দাহ করা না হয়, দেহ দান করতে চান তিনি।





Source hyperlink

Spread the love

Leave a Reply

%d bloggers like this: