৩০ জুলাই PAC-র বৈঠকে মুখোমুখি বসতে পারে মুকুল শুভেন্দু!

 

দেবা দাস, কৃষ্ণনগর: দল বদলের পর প্রথমবার মুখোমুখি বৈঠকে বসতে চলেছেন মুকুল রায় ও শুভেন্দু অধিকারী। আগামী ৩০ জুলাই বিধানসভার পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটি (PAC)র বৈঠক। সেখানেই বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর মুখোমুখি হওয়ার কথা তৃণমূল নেতা মুকুল রায়ের।

আগামী ৩০ জুলাই বেলা ১২টায় বিধানসভার বিকেবি হলে পিএসির বৈঠক হবে। এই পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান মুকুল রায়। এদিকে এই কমিটির অন্যতম সদস্য শুভেন্দু অধিকারী। দল বদলের পর প্রথমবার মুকুল রায় ও শুভেন্দু অধিকারীর একটি বৈঠকে মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরো পড়ুন আত্মসমর্পণ করতে পারে অসমে জঙ্গিদের একটি গোষ্ঠী

এদিনের বৈঠক নিয়ে ইতিমধ্যেই মুকুল রায়, শুভেন্দু অধিকারী-সহ এই কমিটির ২০ জন সদস্যকে জানানো হয়েছে। যদিও সূত্রের খবর, এই বৈঠকের আগেই পিএসি’র চেয়ারম্যান পদ থেকে মুকুল রায়কে সরানোর আর্জি নিয়ে আদালতে যাওয়ার সমস্ত প্রস্তুতিও সেরে ফেলেছে বিজেপি। শোনা যাচ্ছে, আগামী দু’ একদিনের মধ্যেই মুকুল রায়ের চেয়ারম্যান পদ খারিজের দাবি নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে যাবেন শুভেন্দুরা।

বিজেপির বক্তব্য, এখনও খাতায় কলমে মুকুল রায় বিজেপির বিধায়ক। অথচ পিএসি’র চেয়ারম্যান হিসাবে মুকুল রায়ের নাম বিজেপির তরফ থেকে প্রস্তাবেই রাখা হয়নি। বিধানসভার নিয়ম অনুযায়ী, কমিটির চেয়ারম্যানের নামের প্রস্তাব দলই করবে। তা হলে কেন বিজেপির সমর্থন ছাড়াই মুকুল রায় এই কমিটির মাথায় বসলেন? এই প্রশ্ন তুলেই বিজেপি মামলা করতে চলেছে বলে সূত্রের খবর।

আরো পড়ুন উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের খাতা রিভিউ করার পদ্ধতি জানিয়ে দিল সংসদ

বিধানসভায় মোট কমিটির সংখ্যা ৪০। ২০১৬ সালে যার মধ্যে ১৪ টি কমিটি পেয়েছিল তৎকালীন বিরোধী বাম-কংগ্রেস। তাদের প্রাপ্ত মোট আসনের সংখ্যা ছিল ৭৭। বিজেপিও এ বছর বিধানসভা ভোটে একই সংখ্যক আসন জেতে। কিন্তু পদ্ম শিবিরকে সম-সংখ্যক কমিটি ছাড়েনি তৃণমূল। এর পিছনে শাসকদলের যুক্তি, গতবার একাধিক দলের মধ্যে কমিটি বন্টন করতে হয়েছিল। কিন্তু এবার বিরোধী দল শুধুই বিজেপি।

যদিও বাকি কমিটিগুলি নিয়ে কখনওই খুব একটা মাথা ঘামায়নি বিজেপি। শুভেন্দুরা চেয়েছিলেন, পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান করা হোক বালুরঘাটের বিধায়ক অশোক লাহিড়ীকে। কিন্তু সেই কমিটি হাতছাড়া হয়ে যাওয়ায় ভাগে আসা আটটি কমিটিরই চেয়ারম্যান পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন বিজেপি বিধায়করা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *