৪৬ বছরে সর্বনিম্ন সুদের হার পিপিএফের

তনুময় দেবনাথ : মধ্যবিত্তের সঞ্চয়ে ধাক্কা। করোনার জেরে ধাক্কা খেয়েছে ভারতের অর্থনীতি। কাজ হারিয়েছেন বহু মানুষ। মধ্যবিত্তের হাতে এখনও অর্থের টান। এমন পরিস্থিতিতে পিপিএফ বা সেভিংস অ্যাকাউন্টের সুদের হার কমানো জেরে বিপাকে পড়বেন মধ্যবিত্তরা। এবার পিপিএফ (PPF) ও স্বল্প সঞ্চয়ে সুদের হার কমাল কেন্দ্র সরকার। ২০২০-২০২১ আর্থিক বছরের শেষদিন অর্থাৎ বুধবার নয়া সুদের হারের ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, গত ৪৬ বছরের মধ্যে পিপিএফের সুদের হার এটাই সর্বনিম্ন।

আরও পড়ুন : ২০০ জন কংগ্রেস ও সিপিএম কর্মী তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করলেন

কেন্দ্রের নয়া বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ২০২১-২০২২ আর্থিক বছরে পিপিএফ সঞ্চয়ে সুদের হার থাকবে ৬.৪ শতাংশ। এই হার ছিল ৭.১ শতাংশ। কমেছে স্বল্প সঞ্চয়ের (Savings Account) সুদের হারও। নতুন এই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, সেভিংস অ্যাকাউন্টে সুদের হার ৪ শতাংশ থেকে কমে দাঁড়াল ৩.৫ শতাংশ। এক বছরের জন্য যাঁরা টাকা রাখবেন তাঁদের ত্রৈমাসিক সুদের হার ৫.৫ শতাংশ থেকে কমে দাঁড়াল ৪.৪ শতাংশ। ধাক্কা খেয়েছে প্রবীণদের সঞ্চয়ও। নয়া বিজ্ঞপ্তি বলছে, প্রবীণদের সেভিংস অ্যাকাউন্টের ত্রৈমাসিক সুদের হার ৭.৪ শতাংশ থেকে কমিয়ে করা হল ৬.৫ শতাংশ। ৬ বছর আগে মোদী জামানায় সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনায় সুদের হার ৯.১ থেকে কমতে কমতে ৬.৯ শতাংশে এসে ঠেকেছে। কিষান বিকাশ পত্রে সুদের হার নেমে এসেছে ৬.২ শতাংশ।

ধাক্কা খাবেন সঞ্চয়ের উপর নির্ভর করে জীবন কাটানো প্রবীণরা। অনেকেই মনে করছে সুদের হার কমানোয় ভোটবাক্সে এর বিরূপ প্রভাব পড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *