করোনার ভ্যাকসিন তৈরির সাথে সাথেই  ডিস্ট্রিবিউশন ভারতের কোনায় কোনায়

2020-07-16    556

সুরশ্রী রায় চৌধুরী: করোনার ভ্যাকসিন তৈরির সাথে সাথেই  ডিস্ট্রিবিউশন আর সাপ্লাই চেনের মাধ্যমে  ভ্যাকসিনকে ভারতের কোনায় কোনায় পৌঁছে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন রিলায়েন্স ফাউণ্ডেশনের  চেয়ারম্যান নীতা আম্বানি।

তিনি বলেন  করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হওয়ার পর রিলায়েন্স কোম্পানি গোটা দেশে সবার বাড়িতে বাড়িতে এই ভ্যাকসিন পৌঁছে দেবে।  এরজন্য কোম্পানি নিজেদের সাপ্লাই চেনের সহযোগিতা নেবে।

নীতা আম্বানি বলেন, করোনার বিরুদ্ধে এখনো অনেক লড়াই বাকি। এই লড়াইয়ের রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন সরকার আর মিউনিসিপ্যাল অথরিটি গুলোর সাথে মিলেমিশে কাজ করবে। উনি বলেন, আমি আপনাদের আশ্বাস দিচ্ছি যে, করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হলেই আমরা ডিস্ট্রিবিউশন আর সাপ্লাই চেনের সাহায্য নিয়ে এই ভ্যাকসিনকে ভারতের কোনায় কোনায় পৌঁছে দেব। উনি নিজের বক্তব্যে বলেন, রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রির ২ লক্ষ কর্মচারীদের এই কাজ করানোর দায়িত্ব দেওয়া হবে আর তাদের আগাম ধন্যবাদও জানান তিনি।

রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের ফাউন্ডার নীতা আম্বানি বলেন। রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন গোটা দেশজুড়ে পাঁচ কোটির বেশি গরীব, শ্রমিক আর লেবারদের মুখে এই দুঃসময়ে খাবার তুলে দিয়েছে। উনি বলেন, যখন মহামারী শুরু হয়েছিল। তখন পিপিই কিটের অভাব আমাদের চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দেয়। কিন্তু আমরা রেকর্ড টাইমে আমাদের ম্যানুফ্যাকচারিং ফ্যাসিলিটিকে সক্ষম করে প্রতিদিন ১ লক্ষ করে পিপিই কিট আর N95 মাস্ক উৎপাদ করি। রিলায়েন্স গোটা দেশে এমার্জেন্সি সার্ভিস বাহন গুলোকে বিনামূল্যে তেল দিয়েছে। এটা আমাদের জন্য শুধু ব্যবসা না, এটা দেশের প্রতি আমাদের কর্তব্য, ধর্ম আর সেবা।

  বিগত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা সংক্রমণ বেড়ে ৯ লক্ষ ৩৬৬ হাজার ১৮১ হয়ে গেছে। যার মধ্যে মোট ৩ লক্ষ ১৯ হাজার ৮৪৯ টি মামলা সক্রিয়। আর ৫ লক্ষ ৯২ হাজার ৩২ জন মানুষ এই মহামারীকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এখনো পর্যন্ত গোটা দেশে ২৪ হাজার ৩০৯ জনের মৃত্যু হয়েছে এই মারণ ভাইরাসে।

Advertisement

সর্বাধিক জনপ্রিয়