প্রশাসনের অনুমতি অভাবে হলনা প্রশাসনিক বৈঠক

2019-10-23    4683

সুজয় মণ্ডল ঃ  মঙ্গলবার বসিরহাট মহকুমা প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করতে গত ১৭ অক্টোবর রাজভবন এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল উত্তর ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসনকে। সেইমতো মঙ্গলবার সকাল নটা নাগাদ সন্দেশখালি ধামাখালি গেস্ট হাউসে আসেন রাজ্যপাল জগদীশ ধনকর। রাজ্যপালকে আমন্ত্রণ জানাতে ধামাখালি জেলা পরিষদ গেস্ট হাউসে তাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয় পুলিশের পক্ষ থেকে। রাজ্যপালকে আমন্ত্রনের সমস্ত প্রক্রিয়া মানলেও প্রশাসনের অনুমতি অভাবে হলনা প্রশাসনিক বৈঠক।

রাজ্যপালকে স্বাগত জানাতে জেলা পরিষদ  গেস্ট হাউজে জেলার এডিএম-জি সুধীর কুন্থম, বসিরহাটের এসডিও বিবেক  ভস্মে ও সন্দেশখালি ২ নম্বর ব্লকের বিডিও উপস্থিত থাকলেও দেখা মেলেনি  জেলার অন্য প্রশাসনিক আধিকারিক ও জনপ্রতিনিধিদের।

জানা যায় জেলা প্রশাসনের অনুমতি না মেলায় আয়োজনই করা হয়নি প্রশাসনিক বৈঠকের। বৈঠক নিয়ে কথা বললে রাজ্যপাল জানান, গত ১৭ অক্টোবর রাজভবনের তরফে বৈঠকের বিষয়ে জানানো হয়েছিল উত্তর ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসনকে। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী নর্থ বেঙ্গল থাকার কারণে প্রশাসনিক বৈঠকের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না বলে মাত্র ১২ ঘন্টা আগে রাজভবন কে জানানো হয়েছে বলে উল্লেখ করে রাজ্যপাল জগদীশ ধনকর বলেন, " জেলা শাসকের কাছে এমন কি দূরবীন আছে, যা দিয়ে উনি বুঝতে পারলেন মুখ্যমন্ত্রী নর্থ বেঙ্গল থাকলে কলকাতার সব প্রশাসনিক কাজকর্ম বন্ধ হয়ে থাকে। এখন প্রযুক্তির অনেক উন্নতি হয়েছে, তাহলে আগে কেন জানানো হলো না"।

রাজ্যপালের কর্মসূচির অনুমতি না দেওয়ায় রাজ্যপালের কর্মসূচি নিয়ে রাজ্য সরকারের অনুমতির প্রয়োজন আছে কিনা সেবিষয়ে প্রশ্ন তুলে জেলা প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে রাজ্যপাল বলেন, "৭০ সাল থেকে এতদিন কি এই ধরনের কর্মসূচি হয়নি এই রাজ্যে? রাজ্যপাল আসলে কি রাজ্য সরকারের অনুমতি নিয়েছেন কখনো?"



Advertisement

সর্বাধিক জনপ্রিয়